রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

হুঁশিয়ারি হকার নেতাদের নারায়ণগঞ্জের মেয়র ও এমপিদের

মোঃ শাহাদাত হোসেন স্টাপরিপোর্টার

 

 

হকার উচ্ছেদ নারায়ণগঞ্জ শহরকে যানজট নিরাশনের জন্য মেয়র এমপি সহজে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এর প্রতিবাদে হকারতারা বলেছেন আমাদের অধিকার আমরা আদায় করে নেব হয়তো মরবো না হয় অধিকার আদায় হওয়া না পর্যন্ত ঘরে ফিরে যাব না। তারা আগে রাজপথ ছাড়বো না। হকারদের যুক্তিক আন্দোলনে আমরা তাদের পাশে আছি পূর্ণবাসন ছাড়া হকারদের কোনোভাবে উচ্ছেদ করা যাবে না

 

এসব কথা বলেন জেলা হকার সংগঠন পরিষদের নেতারা তারা অবস্থান কর্মসূচিতে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডাক্তার সেলিনা হায়াৎআইভি সংসদ সদস্য শামীম ওসমান সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান ও প্রশাসনের প্রতি কঠোর হোসেন দিয়ে হকার নেতারা সহ এসব কথা বলেন শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারি সকাল দশটায় নগরের চাষাড়া শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন ৫ শতাধিক হকার। এতে অংশের বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতারা। তারা বলেন ১২ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ঘেরাও করবে এই ঘোষণা দেন

অবস্থান কর্মসূচিতে মেয়র এমপি ও প্রশাসনকে উদ্দেশ্য করে হকার নেতারা বলেন বিনা নোটিশে হুট করে একটা সিদ্ধান্ত নেবেন আর হকারদের পেটে লাথি মারবেন তা চলবে না। হকাররা ফুটপাতে দোকানদারি করে তারা তো চুরি ও মাদক ব্যবসা করে না। তাই তাদের পূর্ণবাসন ছাড়া কোন অবস্থাতেই উচ্ছেদ করা যাবে না। হকার নেতারা বলেন হকারদের কারণে যানজট হয় না যানজট হয় অবৈধ অটোরিকশা ও পরিবহন এসটানগুলোর কারণে

 

তাই নিরীহ হকারদের কাঁধে দোষ চাপাবেন না তাদের পেটে লাথি মারবেন না তাহলে সেটা ভালো হবে না। শ্রমিক নেতারা বলেন সকল ফুটপাতের হকারদের নিয়ে আমরা সিটি কর্পোরেশন ও জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে ১২ই ফেব্রুয়ারি ঘেরাও করার ঘোষণা দেন। মেয়রের উদ্দেশ্যে করে বলেন মোট হকার ৫ হাজার আর দোকান দেওয়া হয়েছে মাত্র ৬০০টি আর দুই হাত বাই দুই হাত এটা তো দোকানদারি করা যায় না। আমরা আপনাদের নৌকায় ভোট দিয়ে মেয়র নির্বাচিত করেছি কথায় কথায় হকার উচ্ছেদ করবেন না।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন