রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

‌সিলেটে চার ট্রাক শ্রমিক নেতা আটকের অভিযোগে ঢাকা সিলেট মহাসড়ক অবরোধ

সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি

 

 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দ‌ক্ষিণ সুরমায় ‌সিলেটে প‌রিবহন শ্রমিক নেতাদের আটক করার অভিযোগে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দ‌ক্ষিণ সুরমার সিলেটে পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের চার ট্রাক শ্রমিক নেতাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচয়ে ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন শ্রমিকেরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা পৌনে ছয়টা থেকে পরিবহন শ্রমিকেরা সিলেটের দক্ষিণ সুরমার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের তেতলি এলাকায় অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করেন। এতে সড়কের দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। ভোগান্তি পোহাচ্ছেন যাত্রীরা।

রাত সাড়ে নয়টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অবরোধ চলছিল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেছেন সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়ারদৌস হাসান। তিনি পরিবহন শ্রমিক ও নেতাদের শান্ত করে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছেন বলে আমাদেরকে জানিয়েছেন। এর আগে বিকেলে সিলেটের দক্ষিণ সুরমা তেতলি এলাকার ট্রাক পিকআপ কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের দক্ষিণ সুরমা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফ আহমদ ও সদস্য জমির আহমেদকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে ধরে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়। পাশাপাশি গোলাপগঞ্জ উপজেলা শাখার আরও পাঁচ জনকে ধরে নিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া যায়।

সিলেট জেলা ট্রাক পিকআপ কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি দিলু মিয়া বলেন, সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলা শাখার দুজন এবং দক্ষিণ সুরমা শাখার দুজন পরিবহন শ্রমিক নেতাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁদের অপরাধ কী, কিংবা কেন তাঁদের ধরে নেওয়া হয়েছে, ব্যাপারে কিছুই জানা যায়নি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করেও তাঁদের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিলো না। এ জন্য পরিবহনশ্রমিকেরা উত্তেজিত হয়ে ঢাকা-সিলেট সড়ক অবরোধ করেন।

ট্রাক পিকআপ কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন দক্ষিণ সুরমা শাখার সহ-সভাপতি জুমেল আহমদ বলেন, তাঁদের নেতাদের হাজির করলে তারা অবরোধ প্রত্যাহার করবেন। এর আগপর্যন্ত অবরোধ চলবে। পরে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জনাব আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী ও প্রশাসনের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় হয়।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন