সোমবার, ২০ মে ২০২৪

রাণীশংকৈলে বৃষ্টি জন্য সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায়

সিরাজুল ইসলাম
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

রাণীশংকৈল উপজেলায় তীব্র তাপপ্রবাহ থেকে মুক্তি পেতে বৃষ্টির পানির প্রত্যাশায় প্রার্থনায় সালাতুল ইসতিসকার নামাজ আদায় করা হয়েছে। ২৬ এপ্রিল শুক্রবার সকালে ১০ টায় রাণীশংকৈল পৌরশহরের ডিগ্রী কলেজের মাঠে এ নামাজ অনুষ্ঠিত হয়৷ নামাজে ইমামতি প্রদান করেন রাণীশংকৈল আবাদ তাকিয়া কামিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল্লাহিল বাকী , নামাজ শেষে মোনাজাত করেন রাণীশংকৈল সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল্লাহিল বাকীহুজুর এবং খুতবা পাঠ করেন আলহাজ্ব মাওলানা মাসুদ রানা, রাণীশংকৈল উপজেলায় তীব্র গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে মানুষের জনজীবন। তীব্র থেকে তীব্রতর তাপমাত্রার মুখোমুখি হতে হচ্ছে ঠাকুরগাঁও জেলার মানুষকে। তাপপ্রবাহের কারণে দৈনন্দিন কাজে ব্যাঘাত ঘটছে। মাঠে কাজ করা দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে কৃষকদের। হাসপাতালে বেড়েছে শিশু-বৃদ্ধ রোগীর সংখ্যা৷ এমন পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে বৃষ্টির পানির আশায় নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা। নামাজ আদায় করতে আসা রাণীশংকৈল পৌর মেয়র আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আহামদ হোসেন বিপ্লব, ।বলেন, কাজের জন্য বাইরে বের হওয়া কঠিন হয়ে দাড়িয়েছে। রোদে দুই মিনিট থাকা যায় না। শরীর ঝলসে যাওয়ার মতন অবস্থা। আমাদের নাভিশ্বাস অবস্থা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বৃষ্টির পানির আশায় নামাজ আদায় করলাম। যদি আল্লাহ আমাদের প্রতি রহম করেন তবে স্বস্তি ফিরবে। আরো উপস্থিত ছিলেন রাণীশংকৈল উপজেলার বিভিন্ন জামে মসজিদের ইমামগণ ও সর্বস্তরের মুসল্লিরা ।

রাণীশংকৈল আবাদ তাকিয়া কামিল মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল্লাহিল বাকি, হুজুর বলেন, সারাদেশে দাবদাহে জনজীবনে বিপর্যয় ঘটেছে। আমাদের রাণীশংকৈল উপজেলার মানুষ অস্বস্তি পর্যায়ে চলে গিয়েছে। আমাদের গুনাহর ফসল এসব। আমরা বৃষ্টির পানির আশায় সালাতুল ইসতিসকা নামাজ আদায় করলাম। আল্লাহ আমাদের প্রতি রহম করবেন।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন