শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক মার্কিন সেনার গুলিতে নারী-শিশুসহ নিহত ৪

ঢাকা

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে স্থানীয় সময় রোববার সকালে সাবেক এক মার্কিন নৌবাহিনীর সদস্যের গুলিতে নারী-শিশুসহ চারজন নিহত হয়েছেন।

নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে এক নারী ও তার তিন মাস বয়সী সন্তান রয়েছে। হত্যা করার সময় ওই নারীর কোলে তার সন্তান ছিল। হত্যার পর সাবেক ওই মার্কিন সেনা পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। খবর রয়টার্সের।

হামলাকারী ওই সেনা সদস্যের নাম ব্রায়ান রিলে (৩৩)। তিনি মার্কিন নৌবাহিনীর সাবেক সদস্য। ব্রায়ান রিলের গুলিতে ১১ বছরের একটি মেয়েও আহত হয়েছে। তার অস্ত্রোপচার চলছে।

বিজ্ঞাপন

পক কাউন্টির শেরিফ গ্রেডি জাড এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, ১১ বছরের ওই মেয়ের শরীরে সাতটি গুলি লেগেছিল।

কাউন্টি শেরিফ গ্র্যাডি জাড বলেন, পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে ব্রায়ান নিজেও আহত হয়েছেন। তাকে একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

পুলিশ জানায়, ইরাক ও আফগানিস্তান যুদ্ধে নিরাপত্তাকর্মী ও দেহরক্ষী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ব্রায়ান। তার বান্ধবী পুলিশকে বলেন, ব্রায়ান মানসিক চাপ এবং পেশাগত কারণে হতাশায় ভুগছিলেন। ওই নারীর সঙ্গে সাবেক সেনা সদস্যের চার বছর ধরে সম্পর্ক রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জাড আরও বলেন, এক সপ্তাহ আগে ব্রায়ানের মানসিক স্বাস্থ্যের আরও অবনতি হয়। তিনি তার বান্ধবীকে বলেছিলেন, ঈশ্বরের সঙ্গে তিনি কথা বলেন।

রোববার সকালে ব্রায়ান ৪০ বছরের এক ব্যক্তি, ৩৩ বছরের এক নারী ও তার সন্তানকে গুলি করে হত্যা করেন। ওই বাড়ির পাশেই তিনি ওই নারীর ৬২ বছর বয়সী মাকেও গুলি করে হত্যা করেন। এমনকি তিনি ওই পরিবারের পোষা কুকুরটিকেও গুলি করে হত্যা করেন।

বিজ্ঞাপন

থেকে আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন