রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

বাড়ির জন্য কেনা জমিতে ই একসঙ্গে চার জনের কবর

মোঃ শাহাদাত হোসেন স্টাফ রিপোর্ট

 

 

দাদা-দাদী আর ছোট দুই বোন শেষ বিদায়ের সময় বাকরুদ্ধ হয়ে তাকিয়ে ছিল অল্পের জন্য বেঁচে যাওয়া জান্নাতুল মারুফা বয়স ৮। একটু দূরে দাঁড়িয়ে চোখের জলে তাদের শেষ বিদায় দিচ্ছিল। অটো রিক্সা চালক বাবা জামাল উদ্দিন ও মা মরিয়ম আক্তার টাকা দিয়ে 8 শতক জমি কিনেছিল সেই জমিতেই রোববার 31 ডিসেম্বর সকালে দাফন করা হয় তাদের। খোঁজ নিয়ে জানা যায় তাদের মা মরিয়ম আক্তার ঢাকা একটি হাসপাতালে পরিচ্ছন্ন কর্মী ছিলেন। সে ও তার স্বামী টাকা জমিয়ে জায়গা কিনেছিল কেবা জানত সেই জমিতেই তার স্বামী ও মেয়েদের মাটি দিতে হবে। গত শনিবার নান্দাইল উপজেলার বীর ঘোষ পাল গ্রামে বসত ঘরে অটোরিকশায় চার্চ দেওয়ার সময় বিদ্যুৎ স্পর্শ হয়ে চার জন মারা যায়। তারা হলেন জামাল উদ্দিন বয়স ৪০। তার মা আনোয়ারা বেগম বয়স ৭০। এবং জামালের দুই মেয়ে ফাইজা মনে বয়স ৬। ও অনিকা বয়স চার। রোববার তাদের ফসল জমিতে জানাজা অনুষ্ঠিত হয় দূর দূরান্ত থেকে লোকজন জানা যায় অংশগ্রহণ করে। জানাজার শেষে তাদের একের পর এক কবরে নামানো হয় এবং দুই মেয়েকে দুই পাশে জামাল ও তার মা আনোয়ারা বেগমকে দাফন দেওয়া হয়। জামালের ইস্ত্রি বলেন আমি ও আমার স্বামী মিলে এই জমি কিনেছিলাম আজ সেই জমিতেই তাদের দাফন করা হলো। এই কথাগুলো বলেন এবং অঝোর ধারায় কাঁদতে থাকেন এবং বারবার বেহুশ হয়ে পড়েন।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন