বুধবার, ২২ মে ২০২৪

প্রমত্তা মেঘনা

মো. মোস্তাফিজুর রহমান

 

 

আমি-ই
প্রমত্তা মেঘনা’র তীরে দাঁড়িয়ে—
রাশি-রাশি উর্মিমালা’র বেদনার্ত—
চিৎকার শুনছি——-
আর গণে-গণে যাচ্ছি তাদের করুণভাবে আছড়ে পড়ার একক।
আমি ক’টা গণবো
কতক আছড়ে পড়ছে— বালুময় তীরে
কতক আবার সবুজে ঘেরা সুবিশাল বিস্তীর্ণ মাঠের সীমানা মজবুত প্রাচীরে।
আর মুহূর্তে ধ্বসিয়ে দিচ্ছে সবুজের খন্ড খন্ড রণভূমি।
রণভূমি ধ্বসে পড়ার এ বিচ্ছিন্ন উর্মি—
সজোরে কড়া নাড়ছে তীরবাসী অতি সাধারণ কৃষক-রাখাল ও আপামর জনতাকে—-
যার আঘাতে নিপীড়িত প্রতিটি হৃদয় ক্ষতবিক্ষত হয়ে—
অবিরত লোহিতকণিকা ঝরাচ্ছে —-
যার ব্যথা তাকে তাড়িয়ে বেড়ায়,
যন্ত্রণায় ছটফট করে সে,
আর দিগ্বিদিক আশ্রয়ের আশায় ছুটাছুটি করে অনন্ত সুখের প্রত্যাশায়।
এদিকে নিষ্ঠুর উর্মিমালা একের পর এক তীব্র নাদে আছড়ে পড়ে তার সহচর হারানোর মনোঃকষ্টে।
এ যে নিরন্তর চলা—–! এর শেষ কোথায় কেউ কি জানে?

উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা,
মনপুরা, ভোলা।

তারিখঃ ২০ এপ্রিল ২০২৪ঃঃ০৯:৫৭ এএম
মনপুরা, ভোলা।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন