বুধবার, ২২ মে ২০২৪

পা দিয়ে লিখে পরিক্ষায় উত্তীর্ণ সরিষাবাড়ীর অদম্য সিয়াম

মাসুদ রানা
জামাল পুর জেলা প্রতিনিধি

জন্ম থেকেই দুই হাত নেই। পা দিয়ে লিখে চলমান এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে অদম্য সিয়াম। অভাব, দারিদ্র্য ও শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে পিছনে ফেলে ইচ্ছা আর মনোবল নিয়েই এগুতে চায় সে। মনে বিন্দুমাত্র নেই কোনো হতাশা। অদম্য মেধাবী সিয়াম চলমান এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পা দিয়ে লিখেই জিপিএ ৩.৮৩ পেয়েছে।

উপজেলার চাপারকোনা মহেশ চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে অদম্য সিয়াম। সব বিষয়ে সাফল্যের সাথে পাশ করে সে। তার এ ফলাফলের জন্য বাবা-মা সহ শিক্ষকরাও খুশি।

বিদ্যালয় ও পরিবার সুত্রে জানা গেছে,

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের উদনাপাড়া গ্রামের দিনমজুর দম্পতি জিন্না মিয়া ও জোসনা বেগমের ছেলে সিয়াম। তাদের তিন সন্তানের মধ্যে সিয়াম ছোট। জন্ম থেকেই তার দুটি হাত নেই। কিন্তু থেমে নেই তার পড়ালেখা ও খেলাধুলা।তবে পরিবারের অর্থনৈতিক সংকটের কারণে প্রাথমিকের মাঝ পথে বন্ধ হয়ে যায় তার পড়ালেখা। বিদ্যালয় থেকে বেতন মওকুফ করলে পুনরায় পড়ালেখা শুরু করে সিয়াম। ২০১৮ সালে ব্র্যাক শিশু নিকেতন স্কুল থেকে প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করে একই ইউনিয়নের চাপারকোনা উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তি হয় সে। এর পর কৃতিত্বের সাথে জেএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় সিয়াম। সে এবার ডোয়াইল ইউনিয়নের চাপারকোনা মহেশ চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে কৃতিত্বের সাথে পরিক্ষায় পাশ করে অদম্য সিয়াম।

পরিক্ষায় উত্তীর্ণের বিষয়ে জানতে চাইলে সিয়াম বলেন, জন্ম থেকেই দুই হাত নেই। পা দিয়ে লিখতে লিখতে আমার অভ্যাস হয়ে গেছে। পা দিয়ে লিখেই প্রাথমিক ও জেএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছিলাম। এবারো এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছি।

সিয়ামের মা জোসনা বেগমের সাখে কথা হলে তিনি বলেন, ‘লেখাপড়ার জন্য সিয়ামকে কখনো বলতে হয় না। নিজের ইচ্ছায় সব সময় পড়ালেখা করে। কিছু কিছু কাজ ছাড়া সব কাজ নিজেই করতে পারে। আল্লাহর রহমতে সে এসএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছে। লেখাপড়া করতে চায় ছেলে। তবে অভাবের সংসারে সামনের দিনগুলোতে ছেলেকে কিভাবে কলেজে পড়াশোনা করাবে সেই চিন্তায় খুশিও ম্লান হয়ে গেছে তাদের। সমাজের বিত্তশালীদের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

চাপারকোনা মহেশ চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আলীমুর রাজি শিবলু বলেন, আর দশটা ছেলে মেয়েদের চেয়ে সব সময় পরিক্ষায় ভালো রেজাল্ট করতো সিয়াম। এবার পা দিয়ে লিখে এসএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়েছে অদম্য সিয়াম। একাদশ শ্রেণীতে অত্র কলেজে যদি সে ভর্তি হয়। কলেজের সকল বেতন মওকুফ করে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন