শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

তেতুলিয়ায় তীব্র শীত পড়েছে

পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি খাদেমুল ইসলাম

 

 

তেতুলিয়ায় দুই সপ্তাহ পর ঘন কুয়াশার চাদরে ঢাকা পড়েছে । কুয়াশার সঙ্গে বইছে হিমেল হাওয়া। আবার জনজীবনে নেমেছে স্থবিরতা। তবে সূর্যের আলো ছড়াতে শুরু করলে ধীরে ধীরে কুয়াশা কেটে যায়।

শনিবার সকাল ৯টায় তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১১ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। তথ্যটি জানিয়েছেন তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, গত দুদিন ধরেই তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রির ঘরে অবস্থান করছে।
রাসেল শাহ বলেন, শুক্রবারের চেয়ে কিছুটা তাপমাত্রা কমেছে।

শুক্রবার ১১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে। ১৬ ডিসেম্বর থেকেই দেশের টানা সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হচ্ছে পঞ্চগড়ে। হিমালয় এলাকায় অবস্থান হওয়ায় এখানে শীত আগে নামে। আগামীতে তাপমাত্রা আরও কমতে পারে।

বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা যায়, জীবিকার তাগিদে নিম্ন আয়ের মানুষ কাজে বের হলেও অধিকাংশ শহরবাসী প্রয়োজন ছাড়া বেরুচ্ছেন না। তবে শীত উপেক্ষা করেই ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন এবং নির্বাচনি সভা করছেন প্রার্থী ও সমর্থকরা। এদিকে জেলা ও উপজেলার হাসপাতালগুলোতে আউটডোরে ঠান্ডাজনিত রোগী বাড়তে শুরু করেছে।

জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম জানান, ইতোমধ্যে ২০ হাজার কম্বল পাওয়া গেছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনায় প্রকৃত গরিবদের মধ্যে উপহার হিসাবে এসব বিতরণ চলছে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে শীতবস্ত্র চেয়ে চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। আশা করছি, শিগগিরই আর শীতবস্ত্র পাওয়া যাবে। এছাড়া বেসরকারি ও ব্যক্তি উদ্যোগেও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হচ্ছে।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন