সোমবার, ২০ মে ২০২৪

তেঁতুলিয়ায় রাত পোহালেই উপজেলায় ভোট

খাদেমুল ইসলাম
পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি

পঞ্চগড় জেলা তেতুলিয়ায় উপজেলায় রাত পোহালেই ভোট।সব জল্পনা-কল্পনা, শঙ্কা আর গুজবের অবসান ঘটিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে
ভোট। রাত পোহালেই ষষ্ঠ তেতুলিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হবে। বুধবার (৮ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে। বিএনপিসহ সমমনা দলগুলোর বর্জনের মধ্য দিয়ে পঞ্চগড়ে একযোগে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচন কমিশন (৭ মে ) দুপুরে ভোটের সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে গণমাধ্যমকে ব্রিফিং করেছে।

পঞ্চগড় জেলা নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) মোঃ এলামুল হক সেখানে গ্রহণযোগ্য, অংশগ্রহণমূলক এবং স্বচ্ছতামূলক নির্বাচন হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন।
বিএনপি ও সমমনাদের ভোটবর্জনের প্রসঙ্গ টেনে বলেছেন, কোনও একটা বিরোধী পক্ষ ভোট বর্জনের পাশাপাশি প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে নির্বাচন প্রতিহত করার চেষ্টা করছে। এতে নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে উঠিয়ে আনার ক্ষেত্রে কিছুটা সংকট দেখা দিতে পারে। তবে আশা করি, বিরোধিতা থাকা সত্ত্বেও জনগণের অংশগ্রহণে ও ভোটারদের আগমনে নির্বাচন উঠে আসবে। বিএনপি-জামায়াতের গুজব ও প্রচারে বিভ্রান্ত না হয়ে জনগণকে নির্ভয়ে ভোটকেন্দ্রে আসার আহ্বান জানান তিনি। একইসঙ্গে তিনি কেন্দ্রে এসে নির্ভয়ে ভোট দেওয়ার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান।

এই মুহূর্তে মাঠ এখন জুডিশিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি, পুলিশ ও আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দখলে। সারা দিন বিভিন্ন অঞ্চলে রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে ব্যালট পেপার বাদে বাকি সব নির্বাচনি সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এসব নির্বাচনি সামগ্রী নিয়ে প্রিজাইডিং অফিসাররা নিজ নিজ ভোটকেন্দ্রে গিয়ে কেন্দ্র প্রস্তুত করছেন। ভোটকেন্দ্রেই তারা রাতে অবস্থান করবেন। ভোরে সেখান থেকে রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার দফতরে গিয়ে ব্যালট পেপার সংগ্রহ করবেন। এবারই নির্বাচনে ভোটের দিন সকাল বেলা ব্যালট পেপার সরবরাহ করা হচ্ছে। কিছু কেন্দ্র বাদে সব কেন্দ্রের ব্যালট পেপারই সকালে বিরতণ করা হবে। ৩৭টি কেন্দ্রের ব্যালট পেপার বুধবারই বিতরণ করা হবে।
এবারের নির্বাচনে অংশ নিয়েছে।চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী ৫ জন। ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ৮ জন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ২ জন। উপজেলা ভোট সংখ্যা ১.০৪,৮১৪ জন।
এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রার্থী রয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন