মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

টুঙ্গিপাড়া আরমান হত্যা ট্র্যাজিডি প্রায় ২সপ্তাহ, ১ আসামি গ্রেফতার দেখালেও মেলেনি গাড়িটি

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া উপজেলা বর্নি ইউনিয়নের গিমাডাঙ্গা মুন্সীরচর এলাকার বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়ন গোপালগঞ্জ জেলার সিনিয়র সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. তপু শেখের একমাত্র ছেলে আরমান শেখ(২০)কে শ্বাসরুদ্ধ ও কুপিয়ে নির্মম ভাবে হত্যা করে কতিপয় সন্ত্রাসী মহল। হত্যা কাণ্ডের সাথে জড়িতদের একজনকে গ্রেফতার দেখিয়েছে টুঙ্গিপাড়া থানা পুলিশ। গোপান সূত্রে জানা যায় গ্রেফতার করা আসামি হত্যার সাথে জড়িত আরো ২ জনের নাম প্রকাশ করেছে। চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের প্রায় ২ সপ্তাহ পার হতে যাচ্ছে মিলছেনা কোন সুরাহ, হতাশ আরমানের পরিবার ও এলাকাবাসী। ছেলেকে হারিয়ে বিচারের দারে দারে ঘুরছে সাংবাদিক তপু শেখ । অপর দিকে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে ভয়ে ভীত সে ও তার পরিবার। সাংবাদিক ও তার পরিবারের নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য টুঙ্গিপাড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তিনি। ছেলেকে হত্যা করেও ক্ষ্যান্ত হননি কতিপয় সন্ত্রাসীরা।
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার সাংবাদিক তপু শেখের খেটে খাওয়া ছেলে আরমান উপজেলা নির্বাচনের পরে ১১ই মে আনুমানিক সকাল ৮ টার পর প্রতিদিনের ন্যায় বাড়ি থেকে বের হয় ভাড়া করা ইজি বাইক চালানোর উদ্দেশ্যে। সে প্রতিদিন দুপুরে বাড়িতে আসতো খাবার খেতে, ঐ দিন দুপুরে বাড়িতে আসেনাই। ছেলে খেতে আসবে আসবে ভেবে তার খোঁজ নিতে তার বাবা তার মুঠোফোনে বিকালে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে ফোন বন্ধ পায়। ঐ দিন সে তার ছেলেকে বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুজি করতে রাত পার হয়ে যায়। ব্যাপারটি সে টুঙ্গিপাড়া থানায় জানায়। হঠাৎ দুপুরের দিকে তার বাড়িতে খবর আসে দড়িয়ার কুলের নদীতে একটি লাশ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে তিনি ছুটে ঘটনাস্থলে গেলে দেখতে পায় টুঙ্গিপাড়া থানা পুলিশ তার ছেলের লাশ উঠাইয়া রাস্তার উপর রেখেছে।
আরমানের হত্যাকে নিয়ে সমগ্র গিমাডাঙ্গা এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। নির্মম আরমান হত্যাকে দেখে এলাকার বাবা মায়েরা নিজ সন্তানদের নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছে। অপর দিকে নিষ্পাপ আরমান হত্যাকে জড়িয়ে চিহৃত গণমাধ্যম কর্মী হত্যাটিকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার লক্ষ্যে মিথ্যা, বানোয়াট ও মনগড়া কাহিনি লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তির সৃষ্টি সহ আরমানের পরিবারের মান ক্ষুণ্ন করছে। এ ব্যপারে আরমানের পরিবার আরো হতাশ হয়ে পড়েছে।
এ ব্যপারে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়ন গোপালগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এ জেড আমিনুজ্জামান রিপন বলেন, টুঙ্গিপাড়া গিমাডাঙ্গা গ্রামের মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাংবাদিক তপু শেখের একমাত্র ছেলে আরমান শেখ খেটে খাওয়া পরিশ্রমী ছেলে ছিল, অল্প বয়সে বিবাহ দিয়ে দাদা ডাক শুনতে চেয়েছিল তপু শেখ, আরমানের ঘরে ৭ মাসের একটা ফুটফুটে পুত্র সন্তান ও আছে। হত্যাকারীরা আরমান হত্যার সাথে সাথে এতিম করেছে পুত্র আল-আমিনকে সেই সাথে বিধবা করেছে এক অল্পবয়সী নারীকে, একমাত্র আদরের সন্তানকে হারালো বাবা-মা। তিনি আরো বলেন আরমান হত্যাকে নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট কহিনী রটিয়ে যারা হত্যা মামলাটিকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে চায় তা আমরা হতে দেবনা। আরমান হত্যার গড ফাদার সহ প্রকৃত খুনিদের মুখোশ আমরা খুলবোই। আপনারা এসব বিভ্রান্তিকর ও মনগড়া কাহিনী রচনা না করে আসুন আমরা হাতে হাত ধরে এই হত্যার মূল হোতা সহ খুনিদের বের করতে তদন্তকারী সংশ্লিষ্ট সকলকে সহায়তা করি। আরমান হত্যার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি করছি সেই সাথে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের ফাঁসির দাবি জানাচ্ছি।
এ ব্যপারে টুঙ্গিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার আমিনুর রহমান এর কাছে আরমান হত্যা মামলার ব্যপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, হত্যা মামলাটি আমরা খুব গভীর ভাবে ও দ্রুত তদন্ত করছি । হত্যার সাথে জড়িতদের অতিদ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন