রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

জুড়ীতে নিরব পোল্ট্রিফার্মের দুর্গন্ধে অতিষ্ট এলাকাবাসী ছাড়পত্র না দেওয়ার দাবী,

মোঃ জাকির হোসেন স্টাফ রিপোর্টের

মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার পশ্চিম ভবানীপুর গ্রামের জামে মসজিদ সংলগ্ন স্থানের একটি অবৈধ লেয়ার মুরগির খামারের দুর্গন্ধে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়েছেন। জনবহুল এলাকায় নোংরা পরিবেশে ‘নিরব পোল্ট্রি ফার্ম’ নামক এই মুরগির খামারকে জনস্বার্থে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের নিবন্ধন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র প্রদান না করতে ভোক্তভোগী এলাকাবাসী বুধবার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ও উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন।

ভোক্তভোগী এলাকাবাসী লিখিত আবেদনে জানান, উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের পশ্চিম ভবানীপুর জামে মসজিদ সংলগ্ন রাস্তার ২০ ফুট দুরত্বে সামছু মিয়ার ছেলে আবুল কাশেম পরিবেশ আইনের তোয়াক্কা না করে ‘নিরব পোল্ট্রি ফার্ম’ নামে একটি লেয়ার মুরগির ফার্ম স্থাপন করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে লেয়ার মুরগির ফার্ম চালিয়ে যাওয়ায় আশপাশের লোকজন এর দুর্গন্ধে মারাত্মক দুর্ভোগ পোয়ান। বিশেষ করে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা শ্বাসকষ্টসহ নানা অসুখবিসুখে আক্রান্ত হতে থাকে। এই পোল্ট্রি ফার্মের দুর্গন্ধে ইতিমধ্যে শ্বাসকষ্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে স্থানীয় নাসির মিয়ার স্ত্রী হতু বেগম ও মইয়ব আলীর দুই শিশু সন্তান মারা গেছে। এখান থেকে পোল্ট্রি ফার্মটি অন্যত্র সরানোর অনুরোধ স্বত্তে¡ও এর মালিক আবুল কাশেম তাতে কর্নপাত করেননি। নিরুপায় হয়ে এলাকাবাসী এই অবৈধ মুরগির ফার্মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পরিবেশ অধিদপ্তরের সিলেট ও মৌলভীবাজার কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে কর্মকর্তারা সরেজমিনে পরিদর্শণ করে পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করার অভিযোগে আবুল কাশেমকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এরপর কিছুদিন ফার্মের কাযক্রম বন্ধ রাখলেও বর্তমানে তিনি আগের মত মুরগির ফার্ম দেওয়ার পায়তারা করছেন। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। এর জের ধরে যে কোন সময় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার আশংকা রয়েছে।

ভোক্তভোগীরা জনস্বার্থের কথা বিবেচনায় নিয়ে আবুল কাশেমকে নিবন্ধন ও পরিবেশ ছাড়পত্র প্রদান না করতে জুড়ী উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছেন।

জুড়ী উপজেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তর কর্মকর্তা রমা পদ দে বলেন, নিরব পোল্ট্রি ফার্মের মালিক আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বুধবার এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে আরও একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। দুটি অভিযোগ তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত করে ফা্র্মের নিবন্ধন দেওয়া বন্ধসহ প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে পরিবেশ অধিদপ্তর মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক মোঃ মাইদুল ইসলাম বলেন, পরিবেশ আইন লংঘন করে গণবসতিপূর্ণ এলাকায় লেয়ার মুরগির খামার স্থাপন করে পরিবেশ ও প্রতিবেশের ক্ষতি সাধন করায় নিরব পোল্ট্রি ফার্মের মালিক আবুল কাশেমকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার এলাকাবাসীর লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে পরিবেশ ছাড়পত্র ও বন্ধ করা সহ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন