মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

জুড়ীতে প্রতিবন্ধী পরিবারের ৫ সদস্যসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়রানির অভিযোগ,

স্টাফ রিপোর্টার

 

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে প্রতিবন্ধী পরিবারের ৫ সদস্যসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে এক প্রতিবেশী মামলা দিয়ে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
জানা গেছে জুড়ী উপজেলার সাগরনাল ইউনিয়নের দক্ষিণ বড়ডহর গ্রামের আব্দুল মতিনের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম একই গ্রামের রোস্তম আলী, তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম, প্রতিবন্ধী কাঞ্চন বিবি, তাহের আলী, জহির আলী, বশির খা, আব্দুর রফিক ও বশির আলীকে আসামি করে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দিয়ে হয়রানি করছে বলে ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, মনোয়ারা বেগম একজন মামলাবাজ, সে দীর্ঘদিন থেকে এলাকার নিহরহ ব্যক্তিদের উপর একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। মনোয়ারা আদালতে (মামলা সি আর ৯৩/ ২০২৩, ১৪৬/২২,১৪৬/২২, সহ) ১১ টি মামলা দিয়ে এলাকার নিরিহ মানুষকে হয়রানি করছে। একের পর এক মামলার কারনে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ।

ভুক্তভোগী মরিয়ম বেগম বলেন, আমার ৫ সদস্যের প্রতিবন্ধী পরিবার। মনোয়ারা আমাদর পরিবারের সবাইকে মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আমি এই মামলাবাজের মিথ্যা মামলা থেকে বাঁচতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

ইউপি সদস্য আখলিছ মিয়া বলেন, মনোয়ারা একজন চিহ্নিত মামলাবাজ। সে মামলা দিয়ে এলাকার নিরিহ ব্যক্তিদের একাধিক মামলা দিয়ে হয়রানি করছে।

মনোয়ারা বেগম এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার মেয়ের জীবন মরিয়ম ও তার স্বামী নষ্ট করেছে। তাদের অত্যাচার সইতে না পেরে আদালতে মামলা দিয়েছে। আমরা নিরীহ মানুষ এ অন্যায়ের বিচার চাই।

মনোয়ারা বেগমের দায়ের করা মিথ্যা মামলায় হয়রানির শিকার স্থানীয় এলাকার দক্ষিণ বড়ডহরের বশির আলী অভিযোগ করে বলেন, মনোয়ারা বেগম আমার বিরুদ্ধে ও কোন কারণ ছাড়াই আদালতে মিথ্যা অভিযোগ নিয়ে একটি মামলা করেন। আদৌ তাদের সাথে আমার কোন বিরোধ নেই। যখন তখন যে কাউকে মামলা দিয়ে হয়রানি করানো তার একটা পেশা। আমরা নিরীহ লোকজন ঐ মহিলার অন্যায় নির্যাতন থেকে বাঁচতে চাই।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন