মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪

আসন্ন শারদীয় দুর্গাপূজা -২০২৩ উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি মূলক এক সভা

পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি,

 

 

পঞ্চগড়ে শারদীয় দুর্গাপূজা -২০২৩ উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি মূলক এক সভা বুধবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মো. জহিরুল ইসলাম সভায় সভাপতির বক্তব্যে বলেন, শারদীয় দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে ঘটতে না পারে, সেক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা দরকার। পুজার সময় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়। পূজামণ্ডপে নিরাপত্তার স্বার্থে সংশ্লিষ্ট পূজা উদযাপন পরিষদকে নিজ উদ্যোগে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করতে বলা হয়। পূজামণ্ডপে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সকলকে সজাগ থাকার পাশাপাশি প্রতিটি মন্দির এলাকায় বসবাসরত সব সম্প্রদায়ের নেতাদের সমন্বয়ে সম্প্রতি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। শারদীয় দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে ঘটতে না পারে, সেক্ষেত্রে সকলের সহযোগিতা দরকার। প্রয়োজনে জেলা প্রশাসকের মুঠোফোনে অথবা ৯৯৯ এ ফোন করার পরামর্শ দেন তিনি। তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জেলা পঞ্চগড়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কাউকে নষ্ট করতে দেওয়া হবে না।

পুলিশ সুপার এসএম সিরাজুল হুদা বলন, শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন উপলক্ষে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা দেওয়া হবে। আসন্ন শারদীয় দূর্গাপুজা শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে পঞ্চগড় জেলা পুলিশ ইতোমধ্যেই নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য একটি ছক তৈরি করেছে। পূজা মন্ডপের নিরাপত্তার স্বার্থে মন্ডপগুলোকে অধিক গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা করে সেই অনুপাতে পূজার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মন্ডপে পর্যাপ্ত সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করতে বলা হয়। এছাড়া পূজা উদযাপনকালে কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ও গুজব ঠেকাতে জেলা পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করবে।
আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জেলা অ্যাডজুট্যান্ট শফিউল আযম বলেন, শারদীয় দূর্গাপূজা উদযাপন উপলক্ষে প্রতিটি বড় পূজামণ্ডপে ৮ জন, মাঝারি পূজামণ্ডপে ৬ জন, ছোট পূজামণ্ডপে ৪ জন আনসার সদস্য নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবে।
সভায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান শেখ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, দেবীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আবু বকর সিদ্দিক আবু, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জীবধন বর্মন, সাধারণ সম্পাদক বিপেন চন্দ্র রায়, হরিশ চন্দ্র রায়, মনোজ রায় হিরুসহ জেলা-উপজেলা কমিটির সভাপতি সম্পাদক বক্তব্য দেন।
জেলায় এবার ৩০২ টি মন্ডবে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। #

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন