বুধবার, ২২ মে ২০২৪

আজ অষ্টমী স্নান কোতোয়ালী পুলিশের ৩ স্তরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা

বিশেষ প্রতিনিধি বিশ্বনাথ সাহা বিশু

 

 

 

প্রশাসনসহ বেসরকারি সংগঠনের উদ্যোগে আজ স্নান উৎসবকে সফল করতে নেওয়া হয়েছে নানা ধরনের প্রস্তুতি। এরই মধ্যে সকাল থেকে স্নান উৎসবে আসতে শুরু করেছেন পুণ্যার্থীরা। তারা বিভিন্ন স্কুল,নদীর পাড়ে আশ্রয় নিতে নিয়েছেন। শুক্লা তিথি অনুযায়ী গতরাত ভোর ৪টা থেকে ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত এই দেড় ঘণ্টা উত্তম সময় স্নানের। আর উত্তম লগ্ন সকাল ৯টা ৯ মিনিট ২৩ সেকেন্ড থেকে শুরু হয়ে রাত ৯টা ৯ মিনিট ৩০ সেকেন্ড পর্যন্ত। সেই সঙ্গে ময়মনসিংহ শহরের বিভিন্ন স্থানে মেলাও বসবে।
স্নানে অংশ গ্রহন করা সনাতন ধর্মের লোকদের নিরাপত্তার জন্য ময়মনসিংহ কোতোয়ালী থানার পুলিশ নিয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। কমপক্ষে কোতোয়ালী থানা পুলিশের ২০টি টিম স্নানের ঘাটে ঘাটে দায়িত্ব পালন করছে। এতে রয়েছে পুলিশের মোবাইল টিম ৫টি, ১১ টি প্রিকেট টিম,নৌ টিম ২, হোন্ডা মোবাইল ৫টিসহ রয়েছে পায়চারির একাধিক টিম।গতকাল সন্ধা থেকেই পুলিশ শহর ও নদের পাড়ে দায়িত্ব পালন করছে।
মেলা উদযাপন কমিটি জানিয়েছে, এ বছর স্নান উৎসবের বেশি পুণ্যার্থীর সমাগম হবে। স্নান উৎসবের জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে থানাঘাট,বেগুনবাড়ি, কাচারীঘাট থাকলেও এর বিস্তার বেগুন বাড়ি থেকে কৃষি বিশ্ব বিদ্যালয় ভিসির ঘাট পর্যন্ত। মেলা স্থানে পুণ্যার্থীদের পোশাক পরিবর্তনের বুথ রয়েছে ৩৮টি। সেইসঙ্গে মেলায় পয়ঃনিষ্কাশনের জন্য বেসরকারি ৭টি সংস্থা ৩৫টি অস্থায়ীভাবে পয়ঃনিষ্কাশনের ব্যবস্থা করে দিয়েছে। এছাড়াও মেলা সংশ্লিষ্ট এলাকায় স্কুল, মাদরাসা খোলা রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় এ উৎসবে ২ থেকে ৩ স্তরে জেলার প্রায় ৯০ জন পুলিশ সদস্য মোতায়ন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সুত্র।রয়েছে র্যামব এর টহল।
কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ মাইন উদ্দিন বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে এবার স্নান উৎসবে জেলা শহরের ২ থেকে ৩ স্তরে পুলিশ সদস্য মাঠে থেকে কাজ করে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে যানজট নিরসনে কাজ করতে ট্রাফিক পুলিশও মাঠে রয়েছে।

থেকে আরও পড়ুন

থেকে আরও পড়ুন